সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমন্বয় পূর্বক টেকসই পরিবর্তন নিশ্চিত করবো: খসরু চৌধুরী


Munna প্রকাশের সময় : ২৭/১২/২০২৩, ৫:১৬ অপরাহ্ণ /
সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমন্বয় পূর্বক টেকসই পরিবর্তন নিশ্চিত করবো: খসরু চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক।ঢাকা-১৮ আসনের কেটলি মার্কার প্রার্থী ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. খসরু চৌধুরী সিআইপি বলেছেন, আমি নির্বাচিত হলে আমার প্রথম কাজ হবে সর্বাধিক অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে সকল সমস্যার সমাধান করা এবং সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমন্বয় পূর্বক স্বল্পতম সময়ের মধ্যে টেকসই পরিবর্তন নিশ্চিত করা। একটি উপযুক্ত স্থানে একটি কারিগরি ইনস্টিটিউট স্থাপন করা হবে যেখানে যুবকরা কারিগরি প্রশিক্ষণ পাবে। শুধু তাই নয়, দেশে-বিদেশে তাদের কর্মসংস্থানের জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা করা হবে। প্রতিটি বড় বাজার এলাকায় বিনামূল্যে ইন্টারনেট হটস্পট থাকবে যাতে বাজারের ব্যবসায়ীরা তাদের উন্নতির জন্য প্রযুক্তির সর্বোত্তমভাবে ব্যবহার করতে পারে।

বুধবার রাজধানীর দক্ষিণখানের হলান এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগকালে তিনি এসব কথা বলেন। এরপর তিনি আশকোনা, নদ্দাপাড়া, আনল, আইনুসবাগ, সোনারখোলা এলাকায় গণসংযোগ চালান।

এসময় তার সঙ্গে এ সময় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক এস এম মাহবুব আলম, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য কাজী সালাউদ্দিন পিন্টু, দক্ষিণখান থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম মাসুদুজ্জামান মিঠু, আওয়ামী লীগ নেতা সেলিম খানসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, ঢাকা-১৮ এর সব জনগণ অর্ধবার্ষিক বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্পেইন উপভোগ করবেন যেখানে এক্স-রে, চক্ষু, নাক, কান ও গলা বিশেষজ্ঞ এবং মৌলিক ঔষুধ সুবিধাসহ অভিজ্ঞ ডাক্তার উপস্থিত থাকবেন। ঢাকা-১৮ এর প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভালো, মেধাবী কিন্তু দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পূর্ণ উপবৃত্তি প্রদান করা হবে। আমি অবশ্যই এটা নিশ্চিত করব।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক বলেন, আমি নিরলসভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কর্মসংস্থান ব্যবস্থায় কাজ করব যাতে একজন শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী চাকরি নিয়ে স্নাতক হয়। এটি তাদের সমাজে মূল্য সংযোজন করতে আরও অনুপ্রাণিত করবে। প্রতিটি মসজিদে শিশুদের মৌলিক ইসলামী শিক্ষা বিনামূল্যে প্রদান করা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে কমপক্ষে ১০টি কেন্দ্র (মসজিদ) থাকবে যেখানে এই সুবিধাটি প্রদান করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা-১৮ হবে মাদকমুক্ত। সন্ত্রাসের ভয় ছাড়াই মানুষ স্বাধীনভাবে চলাফেরা করবে। এই আসন জনগণ দ্বারা পরিচালিত হবে। যেখানে থাকবে না কোন সন্ত্রাস, মাদক ও চাঁদাবাজ। আমি জনগণের সেবক হতে চাই। নির্বাচিত হলে আমি ঢাকা-১৮ কে সব আসনের মধ্যে সেরা করার প্রয়াস নিয়ে এগিয়ে যাব।

এদিকে, ঢাকা-১৮ আসনের উত্তরখান ও খিলক্ষেত এলাকায় কেটলি মার্কার পক্ষে গণসংযোগ করেন খসরু চৌধুরীর স্ত্রী ও কেসি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভাইস চেয়ারম্যান নীপা চৌধুরী।

এ সময় তার সঙ্গে ঢাকা মহানগর উত্তর মহিলা আওয়ামী লীগের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।