সন্ত্রসীদের হামলায় সংবাদকর্মী আহত আসামী ধরতে ব্যর্থ বাংলাদেশ পুলিশ


Munna প্রকাশের সময় : ২৬/০৩/২০২৩, ৫:২৬ অপরাহ্ণ /
সন্ত্রসীদের হামলায় সংবাদকর্মী আহত আসামী ধরতে ব্যর্থ বাংলাদেশ পুলিশ

বিদ্যুৎ চন্দ্র বর্মন, স্টাফ রিপোর্টারঃ দিনাজপুরের পার্বতীপুরের সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীদের হামলার স্বীকার হয়েছেন দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকার ক্রাইম রিপোর্টার আবু সাইদ। ঘটনাটি ঘটেছে গত ০৬/০৩/২০২৩ ইং তারিখ রাত আনুমানিক ১০.০০ টার দিকে পার্বতীপুর নতুন বাজার এলাকায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় বকুল ও ববী সহ কয়েকজন রাত আনুমানিক ১০.০০ টার দিকে গণমাধ্যম কর্মী আবু সাইদ এর উপর হামলা চালায়। হামলাকারীরা এতই মারমুখী ছিল যে তাদের উপর্যপুরি আঘাতে সংবাদ কর্মী আবু সাইদ শারিরীকভাবে জখম হলেও তারা ক্ষান্ত হয় নি। বাশেঁর বাতা দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। স্থানীয়দের সহযোগীতায় সংবাদ কর্মী আবু সাইদকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে সংবাদ কর্মী আবু সাইদ নিজেই বাদী হয়ে পার্বতীপুর জি আর পি থানায় একটি মামলা দায়ের যার নং- ১, তারিখ- ১২/০৩/২০২৩ ইং এদিকে হামলা ২০ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

আসামীদের প্রায়ই পার্বতীপুর রেল স্টেশন সহ শহরের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াতে দেখেছে অনেকে। আসামীদের প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ানো ও পুলিশ আসামী ধরতে গড়িমশি করায় সংবাদ কর্মী আবু সাইদ এর উপর হামলার প্রতিবাদে গত ২০ ই মার্চ সাংবাদিক সম্মেলন করা হয়েছে। এ সময় পার্বতীপুর উপজেলার সকল সাংবাদিকগণ ও তার বড় ছেলে জুবায়ের হোসেন দুলাল উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকরাও এ ধরনের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। এবং লিখিত বক্তেব্যে আবু সাইদ হামলায় জড়িতদের দ্রæত আইনের আওতায় আনার আহŸান জানান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান সংবাদ কর্মীরা রাস্তায় যদি এভাবে হামলার স্বীকার হয় তাহলে আমাদের সাধারণ মানুষের জীবনের নিরাপত্তা কোথায় ? মানুষের একটাই প্রশ্ন সন্ত্রাসীরা কি আসলেই অপ্রতিরোধ্য। নাকি প্রশাসন জেনেশোনে এদের ধরছে না। এর কোন অদৃশ্যশক্তির দ্বারা পরিচালিত। পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না।

তারা বিভিন্ন অপরাধের মামলা নিয়ে কিভাবে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তাদের প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ানো ও অপরাধমূলক কাজ দেখে মানুষ ভাবছে সন্ত্রাসীরা অপ্রতিরোধ্য হয়ে পড়েছে। তাদের ধরার মতো কি দেশে কোনো আইন নেই। এ বিষয়ে পার্বতীপুর জি আর পি থানার এস আই সাজিদুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে জানান আসামীরা বর্তমানে পলাতক রয়েছে। আসামী ধরতে একাধিক ফোর্স মাঠে নেমেছে। আমরা পুরোপুরি চেষ্টা করছি আসামী ধরার জন্য।