শান্ত নদী খননের ফলে নদীতে ভেঙে পড়েছে রাস্তা,জনদুর্ভোগ চরমে


Sokal Pratidin প্রকাশের সময় : ১৪/০২/২০২৩, ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ /
শান্ত নদী খননের ফলে নদীতে ভেঙে পড়েছে রাস্তা,জনদুর্ভোগ চরমে

সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি।

সাতক্ষীরার তালা উপজেলার দলুয়া গ্রামের উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়া শান্ত নদী খনন করতে গিয়ে ভেঙে ফেলেছে চলমান পাকা সড়ক। এতে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ওই এলাকার মানুষ। ভাঙা সড়কটি দ্রুত সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।স্থানীয়রা জানান, রাস্তার পাস থেকে মাটি কেটে ফেলা ও রাস্তার উপরে ড্রেজার মেশিন চালিয়ে নদীর মাটি উপড়ে ফেলার কারণে প্রায় হাফ কিলোমিটার রাস্তা ভেঙে পড়েছে নদীতে। এতে আমাদের চলাচলের বিভিন্ন অসুবিধা হচ্ছে।বিল্লাল হোসেন জানান, রাস্তা দিয়ে আমরা চলাচল করতে পারছিনা। বিভিন্ন সময় দুর্ঘটনার শিকার হতে হচ্ছে। শিক্ষার্থীরা স্কুলে যাওয়ার সময় পড়ে যাচ্ছে, গ্রামের মানুষ রাস্তা দিয়ে চলাচলের সময় নদীতে পড়ে যাচ্ছে। স্থানটি নিয়ে বিপদে আছি। আমরা চাই আমাদের রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার করে দিক।বাহারাম নামের এক বৃদ্ধা জানান,নদী খনন করতে গিয়ে আমাদের রাস্তাটা নষ্ট করে দিচ্ছে। আমি সেদিন রাতে পড়ে গেছিলাম আর একটু হইলে মারা যেতাম। আমরা চাই দ্রুত রাস্তায় ঠিক ঠিক করেদিক কর্তৃপক্ষ।আবুল হোসেন,আমরা রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে পারছিনা। বিভিন্ন সময় আমাদের বাচ্চারা পড়ে যাচ্ছে মুরুব্বীরা পড়ে যাচ্ছে নদীতে । আমরা চেয়ারম্যান-মেম্বার কে বলেছি কেউ পদক্ষেপ নেয়নি। এমনকি শান্ত নদী খনন করছে তার ঠিকাদারকে জানিয়েছি তারা কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। প্রায় মাসখানেক হলো রাস্তাটির বেহাল দশা।রাস্তার ঠিকাদার সোহেল সিকদার জানান, রাস্তাটিতে পিস দিলেই কাজ শেষ হয়ে যেত। নদী খননের ফলে রাস্তাটি ভেঙে পড়েছে প্রায় হাফ কিলোমিটার। রাস্তা ভাঙ্গার কারণে আমার কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে আমি এখন কি করবো।নদী খননের সাফ ঠিকাদার জিয়াউর রহমান জানান, নদী খনন করেছি পরে দেখি রাস্তা ভেঙে পড়েছে এখন আর কি করার, রাস্তাটি সংস্কার করে দেওয়ার কথা বললে বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাথে কথা বলতে হবে। রাস্তার পাশ থেকে মাটি কেটে নেওয়া ও রাস্তার উপরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি কাটার ফলেই রাস্তাটি নদীতে ভেঙেছে কি?? জানতে চাইলে তিনি কিছু বলতে পারবেন না বলে জানান।খলিষখালী ইউপি চেয়ারম্যান সাব্বির হোসেন এর মুঠোফোনে কয়েকবার ফোন দিলেও রিসিভ করেননি।