রূপগঞ্জে যৌতুক না দেওয়ায় স্রীকে হত্যার হুমকি 


Munna প্রকাশের সময় : ০৯/০৯/২০২৩, ৬:৫১ অপরাহ্ণ /
রূপগঞ্জে যৌতুক না দেওয়ায় স্রীকে হত্যার হুমকি 

সোহেল কবির, স্টাফ রিপোর্টার রূপগঞ্জ উপজেলা সদর রূপগঞ্জ  ইউনিয়নের জাঙ্গির গ্রামের মোস্তফা মিয়ার পুত্র সাগর মিয়াকে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না দেওয়ায় স্রী মারিয়া আক্তারকে হত্যার হুমকি দিয়েছে নারী ও শিশু  নির্যাতন আইনে মারিয়া আক্তার বাদি হয়ে  নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট  ৩ নং আদালতে সি,আর মোকদ্দমা নং P ৮২২ /২০২৩ মামলা দায়ের করেন।বিবাদীরা হলো,স্বামী -সাগর মিয়া(২২),শ্বশুর মোস্তফা মিয়া (৫০) ও শাশুড়ী শাহিনা বেগম (৪৪)। জানা গেছে ১নং বিবাদী সাগর মিয়া বিগত ১৯ মে ২০২২ সালে ৪ লাখ টাকা  দেন মোহর ধার্য্য করিয়া ইসলামি  শরিয়া মোতাবেক মিঠাব গ্রামের মফিজুল ইসলামের কন্যা মারিয়া আক্তারের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।বিবাহের পর বাদিনীর পিতা, মাতা,মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করিয়া ৩ ভরি স্বর্নালংকার স্টিলের আলমারি, খাট,ড্রেসিং টেবিল সহ প্রায় ৪ লাখ টাকার জিনিসপত্র প্রদান করা হয়।বিবাহের কিছুদিন অতিবাহিত হতে না হতেই বিবাদী বাদীনিকে তাহার পিতা ও মাতার  নিকট থেকে ২ লাখ টাকা যৌতুক আনিয়া দেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে।মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করিয়া ১ লাখ টাকা স্বামী সাগরের হাতে তুলে দেয়। গত ২০ জুলাই ২০২৩ ইং আবারো বাদীনির নিকট আরো ১ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে।বিবাদী পাশের গ্রামের ১ সন্তানের জননীর সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পরে।স্বামীর অনৈতিক কর্মকান্ডের বাধা দিলে স্রীকে মারধোর করতো এবং তালাকের  হুমকি দিতো।উপায়ন্তর না দেখে স্বামীর বাড়ি  থেকে বাপের বাড়ি মিঠাবোতে খালি হাতে ফিরতে হয়।
নারায়ণগঞ্জ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দেওয়ার পর আসামীরা বাদিনীকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। ইতিমধ্যে আসামি সাগরের বিরুদ্ধে রূপগঞ্জ থানায় গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ আসামীকে ধরছেনা।বাদিনীর পরিবার আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে।