ঢাকা, শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : জানুয়ারি ২৯, ২০২২

মালয়েশিয়ায় নির্মাণ শ্রমিকের মণিরামপুরে দাফন সম্পন্ন

অনলাইন ডেস্ক

নূরুল হক, মণিরামপুর প্রতিনিধি:

 

মণিরামপুরের যুবক নির্মাণ শ্রমিক রায়হান হোসেন (২৬) মালয়েশিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় নিহতের ২২ দিন পর শুক্রবার রাতে তার মরদেহ বাংলাদেশে আনা হয়।

 

শনিবার দুপুরে যশোরের মনিরামপুর উপজেলার ঘুঘুরাইল গ্রামে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। রায়হানের অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 

জানাযায়, মণিরামপুর উপজেলার শ্যামকুড় ইউনিয়নের ঘুঘুরাইল গ্রামের কৃষক সুলতান হোসেনের দুই ছেলে-মেয়ের মধ্যে রায়হান ছিল বড়।

 

পিতার সংসারে একটু সুখের আশায় অবিবাহীত রায়হান হোসেন চাকুরি নিয়ে কয়েক বছর আগে মালয়েশীয়া গমন করেন। রায়হানের পিতা সুলতান হোসেন জানান, মালয়েশিয়ার পেনাং শহরে তার ছেলে একটি ফার্মের অধিন নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করতেন। গত ৭ জানুয়ারি সকালের দিকে রায়হান হোসেন সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত হন।

 

 

শুক্রবার রাতে তার মরদেহ আনা হয় বাংলাদেশে। শনিবার দুপুরে যশোরের মনিরামপুর উপজেলার ঘুঘুরাইল গ্রামে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

 

 

খবর পেয়ে থানা বিএনপির আহবায়ক সাবেক পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট শহীদ ইকবাল হোসেন, পৌর আহবায়ক খায়রুল ইসলাম, মফিজুর রহমান, আবদুল হাই, অ্যাডভোকেট মকবুল ইসলাম, খান শফিয়ার রহমান, মতিয়ার রহমান, ছাত্রদলের আহবায়ক ওলিয়ার রহমানসহ বিভিন্ন নেতৃবৃন্দসহ হাজারো মুসল্লি জানাজা নামাজে অংশ নেন।

 

 

পরে নেতৃবৃন্দ বাড়িতে গিয়ে শোকসন্তপ্ত পরিবারকে সান্তনা দিয়ে গভীর সমবেদনা জানান।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আরও পড়ুনঃমনিরামপুরে সাংবাদিক সঞ্জয় দে’র বাবা পরোলোক গমন


আপনার মন্তব্য