বাপ্পীর কারনেই পিছিয়ে পরেছে ‘শত্রু’ বললেন মিতু


Munna প্রকাশের সময় : ০১/০৫/২০২৩, ৫:২৮ অপরাহ্ণ /
বাপ্পীর কারনেই পিছিয়ে পরেছে ‘শত্রু’ বললেন মিতু

 

এবারের ঈদ উপলক্ষে দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে আটটি চলচ্চিত্র। অনেক বছর পর এবারই প্রথম কোন উৎসবকে কেন্দ্র করে একসঙ্গে এতগুলো ছবি মুক্তি পেয়েছে। মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে টানা ১৩টি ফ্লপ ছবির নায়ক বাপ্পি চৌধুরী ও অভিষেক ছবিতেই ব্যর্থ নবাগতা জাহারা মিতু অভিনীত ‘শত্রু’ ছবিটি। ছবিটি পরিচালনা করেছেন সুমন ধর। সংশ্লিষ্ট সুত্র মতে ঈদের সবগুলো ছবি আশানুরূপ দর্শক টানতে পারলেও ভালো অবস্থানে নেই ফ্লপ জুটি বাপ্পি – মিতুর ‘শত্রু’ ছবিটি। ২৪ হলে মুক্তি দেয়া হলেও দুই তিনটা হল ছাড়া বাকি হলগুলোতে দর্শকশূন্যতায় ভোগে ‘শত্রু’। মুক্তির তিন দিন পর যমুনা ব্লকবাস্টার ও লায়ন সিনেমাস থেকে ‘শত্রু’ ছবিটি নামিয়ে দেয়া হয়। এক্ষেত্রে একমাত্র কারণ ছিলো দর্শকশূন্যতা। জানা গেছে, দ্বিতীয় সপ্তাহে এসে দর্শকশূন্যতার কারণেই সাতক্ষীরার সঙ্গীতা সিনেমা হল থেকে ‘শত্রু’ ছবিটি নামিয়ে দিয়ে অন্য আরেকটি ‘লোকাল’ ছবির প্রদর্শনী চলছে। ‘শত্রু’ ছবিটি সফল না হওয়ার কারণ হিসেবে অনেকেই বলছেন বাপ্পি চৌধুরীর অহংকার ও সিনিয়রদের প্রতি অশ্রদ্ধার কারনেই দর্শক ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন এই নায়ক। তবে লাগাতার ফ্লপ ছবির এই নায়ক এটা মানতে নারাজ। তার দাবি – বাপ্পি চৌধুরীর নামের ওপরেই ছবি চলবে। সম্প্রতি একটি টিভি অনুষ্ঠানে এমনটাই দাবী করেছিলেন তিনি। তাকে দর্শক ভালোবাসে বলেই তার দাবি। কিন্তু বাস্তবে তার এই দাবি মিথ্যে, ‘শত্রু’ ছবির দর্শকশূন্যতা সেটাই প্রমাণ করেছে। এবার শত্রু ছবির ব্যর্থতার বিষয়ে মুখ খুললেন বাপ্পির সঙ্গে ফ্লপ জুটির তকমা পাওয়া ‘শত্রু’ ছবির নায়িকা জাহারা মিতু। এত বড় বাজেটের একটা ছবি কেনো এভাবে পিছিয়ে পরলো, সেই ব্যাখা দিতে গিয়ে জয়বাংলা নামের একটি ফ্লপ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষিক্ত হওয়া দুই ছবির এই নায়িকা বলেন, ‘শত্রু’ ছবিটি পিছিয়ে পরার একমাত্র কারণ বাপ্পি চৌধুরী। তার কারনেই এটি ভালোর মুখ দেখেনি। সম্প্রতি একটি পত্রিকার ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের লাইভ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন নায়িকা জাহারা মিতু। তিনি আরও বলেন, শত্রু বিগ বাজেটের ছবি। ফুল মাসালাদার একটি ছবি এটি। এটা একমাত্র ঈদেই মুক্তি দেয়ার মতো ছবি। এতে সব কিছুই আছে । তবুও আমরা পিছিয়ে গেছি একমাত্র বাপ্পি চৌধুরীর কারনে। আমরা সেভাবে প্রচারণা করতে পারিনি। ছবিটি ভালো, কিন্তু প্রচারণার ঘাটতি থাকায় আমরা দর্শকের কাছে পৌঁছুতে পারিনি। আমাদের পরিচালক, প্রযোজকসহ টিমের সবাই প্ল্যান করেছিলাম আমরা একসাথে প্রচারণায় যাবো। কিন্তু জানিনা বাপ্পি চৌধুরীর কী সমস্যা হলো, সে আমাদের সাথে আসেনি। সে একা একা তার মতো কাজ করেছে। কোন কিছুই আসলে একা একা হয় না। তার নেতিবাচক কথা আর অহংকারের কারনেই আজ ‘শত্রু’ ছবিটি পিছিয়ে গেছে। সিনিয়রদের নিয়েও সে অনেক নেতিবাচক কথা বলেছে, যা এই ছবির ক্ষেত্রে খুব বাজে ভাবে প্রভাব ফেলেছে।