বাংলা নতুন বছর হোক জাতীয় ঐক্যের বাংলাদেশ : বাংলাদেশ ন্যাপ


Munna প্রকাশের সময় : ১৩/০৪/২০২৩, ৬:০৪ অপরাহ্ণ /
বাংলা নতুন বছর হোক জাতীয় ঐক্যের বাংলাদেশ : বাংলাদেশ ন্যাপ

সকল গ্লানি ও ব্যর্থতা নিয়ে বিদায় হোকে ১৪২৯, আর বাংলা নববর্ষ ১৪৩০ হোক জাতীয় ঐক্যের বাংলাদেশ’ এই প্রত্যাশা করে দেশবাসী ও বিশ্বের সকল বাঙ্গালিদের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ। বৃহস্পতিবার (১৩ এপ্রিল) বাংলা নতুন বছর ১৪৩০কে স্বাগত জানিয়ে গণমাধ্যমে প্রেরত এক বাণীতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। নেতৃদ্বয় বলেন, তীব্র দাহদাহের মাঝে এবং দ্রব্যমূল্যের নিয়ন্ত্রহীন পরিস্থিতির বিপর্যয়ের মধ্যেই পহেলা বৈশাখ ১৪৩০। বাংলা সনের প্রথম দিন। নববর্ষের প্রথম প্রভাতে দেশবাসীকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে মহান আল্লাহর নিকট এই প্রার্থনা করি মহান আল্লাহ যেন আমাদের নতুন বছরের প্রভাতেই যেন ভয়াবহ বিপর্যয় থেকে মুক্তি দান করেন। একই সাথে প্রার্থনা অতিতের সকল গ্লানি, ব্যর্থতা ও অনৈক্য মুছে ফেলে জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে আমরা বিপর্যয় মোকাবেলা করতে স্বক্ষম হই। তারা বলেন, বাংলা নববর্ষ আমাদের জাতীয় জীবনের এক উজ্জল আনন্দময় উৎসব। এই উৎসব সুপ্রাচীন ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতা। পহেলা বৈশাখ থেকেই শুরু হয় নতুন বছরকে বরণ করে নেওয়ার আকুলতা। আমরা প্রত্যাশা করি নতুন বছরে অতীতের সকল ব্যর্থতা, জরাজীর্ণতা পেছনে ফেলে নতুন উদ্দীপনা ও উৎসাহে সুন্দর সমৃদ্ধ আগামী বিনির্মাণে এগিয়ে যাওয়ার। নেতৃদ্বয় আরো বলেন, নানা দুর্যোগ-দুর্বিপাকের মধ্য দিয়ে আমাদের সামনে চলে এসেছে ১লা বৈশাখ। ফেলে আসা বছরের দূর্যোগ, দুর্বিপাক কাটিয়ে আমরা নতুন বছরে এগিয়ে যাওয়ার সোনালী সম্ভাবনা দেখতে পাবো বলে বিশ্বাস করি। বর্তমান দু:সময় সত্ত্বেও আমাদের শান্তি ও সহাবস্থান ফিরিয়ে আনতে হবে, প্রতিষ্ঠা করতে হবে জাতীয় ঐক্য। বিচ্ছেদ ও বিভাজন দুর করে ১লা বৈশাখের উৎসবের প্রাঙ্গন ভরে উঠুক পারস্পরিক শুভেচ্ছায়। বানীতে তারা বলেন, প্রতিটি উৎসবের অন্ত:স্থলে থাকে কোমলতা, শ্রদ্ধা, সংকীর্ণহীনতা এবং হীনমন্যতা থেকে মুক্তির মন্ত্র, ১লা বৈশাখের উৎসবের অন্তরে এই প্রত্যয়গুলোই সবার মনে জেগে উঠুক। ১৪৩০ বাংলা সনের প্রথম দিনের নতুন আলোতে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নিকট কায়মনোবাক্যে দেশের সকল মানুষের সুখ ও শান্তির জন্য প্রার্থনা করি, প্রার্থনা করি করোনার মত ভয়াবহ ভাইরাস থেকে তিনি আমাদের মুক্তিদিন। নববর্ষের এই নতুন সকালে মহান আল্লাহর কাছে সকলের ব্যক্তিগত, পারিবারিক তথা জাতীয় সকল পর্যায়ে সুখ ও শান্তি কামনা করি।