ঢাকা, শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২২

বাঁচতে চাই রুবেল “চাই একটু সহানুভূতি” সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসুন

অনলাইন ডেস্ক

কাজী ইমদাদুল বারী জীবন, তালা উপজেলা প্রতিনিধি,,,,

সাতক্ষীরার জেলার, তালা উপজেলা তালা সদরের শিবপুর গ্রামের রুবেল মোল্যার ( ২৬) দুটি কিউনী নষ্ট। গত সাত মাস যাবৎ ঢাকার শ্যামলী সিকেডি ইউরোলজী হাসপাতালের এম. ডি প্রফেসর ডাঃ কামরুল ইসলামের তত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। হতদরিদ্র দিনমজুর পরিবারের রুবেল মোল্যা তালার মাঝিয়াড়া বাজারে ছোট্ট পোল্টি মাংশের ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তাঁর একটি শিশু কন্যা সন্তান আছে।

তালায় একটি বেসরকারী সংস্থা মানব উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় তার চিকিৎসা চলমান রয়েছে। রবিবার (১৪ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত তার চিকিৎসার জন্য ব্যয় হয়েছে ৬,৫০,২৩০ টাকা।

এ পর্যন্ত অনুদান প্রদান করেছেন সাতক্ষীরার সাবেক জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল, তালা উপজেলা চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, জেলা সমাজ সেবা অফিসার ৫০ হাজার টাকা, তালা থানার গোপালপুর গ্রামের ওমর আলী শেখ, সহর আলী শেখ, বদর উদ্দীন শেখ, তিন ভাই মিলে ৫০ হাজার টাকা, মাঝিয়াড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য ডাঃ সৈয়দ খায়রুল ইসলাম মিঠু এক হাজার টাকা, কপিলমুনি মাহমুদকাটি গ্রামের মোঃ জহর আলী গাজী ২৩ হাজার টাকা, মোঃ আব্দুল হালিম চট্টগ্রাম কর্নফুলি উপজেলায় বাড়ি দুই হাজার ৩শ টাকা, তালার আলাদীপুর গ্রামের মোঃ ইউনুস আলী মোড়ল ৫শ টাকা, শিবপুর গ্রামের

আব্দুস সবুর খাঁ, রফিকুল ইসলাম খাঁ ১০ হাজার টাকা, খানপুর গ্রামের ময়জুদ্দিন সরদার এক হাজার টাকা, পাটকেলঘাটা থানা সমিতির পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা, মাঝিয়াড়া গ্রামের শ্রী বাবলু দত্ত পাঁচ হাজার, মোঃ আতিকুল ইসলাম শ্যামলী ঢাকা ৬ হাজার, ডাঃ আবুল বাসার ও মিসেস ছবিরোন বেগম ঝাউডাংগা সাতক্ষীরা এক হাজার, রুবেল মোল্লার পিতা মোঃ মজিবর মোল্যা ৫০ হাজার, তালার মানব উন্নয়ন ফাউন্ডেশন, শিবপুর তালা সাতক্ষীরার সাবেক পরিচালক এস এম কামরুল ইসলাম, সাবেক পরিচালক এস এম আকরামুল ইসলাম বর্তমান পরিচালক নিগার সুলতানা নিপা ও মানব উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও তালা সদর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জাতীয় পার্টির তালা উপজেলা সভাপতি সাংবাদিক এস এম নজরুল ইসলাম ৫ লাখ ২৮ হাজার ৪৩০ টাকা।

মোট ব্যয় ৬ লাখ ৫০হাজার ২৩০ টাকা। বর্তমান জমা আছে সরকারী প্রদানকৃত অনুদান ৫০ হাজার, গোপালপুর তিন ভাই মিলে দেওয়া ৫০ হাজার, মাহমুদকাটি এলাকার রুবেল মোল্লার শ্বশুর দেওয়া ২০ হাজার, ডাঃ সবুর ও রফিক খাঁ ১০ হাজার। মোট ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা। এছাড়াও বিভিন্ন ব্যক্তিগণ তাহাকে সাহায্য করেছেন।

আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি অপারেশনের টাকা জমা দিতে হবে ২,১০,০০০/- টাকা। অপারেশনের পর আরও ৩ মাস চিকিৎসাধীন থাকতে হবে ঢাকায়। ডাঃ কামরুল ইসলাম সাহেব আনুমানিক ধারনা দিয়েছেন আরও কমপক্ষে আনুমানিক ব্যায় হবে ৫,০০,০০০/- টাকা। এই অসহায় তরুন যুবকের জীবন বাঁচাতে সমাজের বিত্তবানরা ও সকল শ্রেণীর ব্যক্তিদের সহযোগিতা প্রয়োজন।

সরাসরি রুবেল মোল্যার সঙ্গে কথা বলে খোঁজখবর নিয়ে বিকাশ নম্বর ০১৯৮৮-৯৬৯৭৭৭ তে সহযোগিতা করতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ বকশীগঞ্জে এক প্রতিষ্ঠানের সবাই ফেল !


আপনার মন্তব্য