প্রবাসীর বউ নিয়ে পালিয়ে গেল বিকাশ দোকানদার কাউসার 


Sokal Pratidin প্রকাশের সময় : ১০/০৩/২০২৩, ১০:২৫ পূর্বাহ্ণ /
প্রবাসীর বউ নিয়ে পালিয়ে গেল বিকাশ দোকানদার কাউসার 

(মোঃ জিহাদ হোসেন)  নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম (৪০), পিতা: কফিল উদ্দিন (মৃত) এর স্ত্রী মোসাঃ মার্জিয়া আক্তার (৩০) তার স্বামী ও দুই সন্তানকে ফেলে রেখে পরকিয়া প্রেমিক মোঃ কাউসার (৩৫) এর সাথে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার (০৩ মার্চে) সন্ধ্যায় আনুমানিক ৬:৩০ এর সময়ে। সরেজমিনে গিয়ে পলাতক মার্জিয়ার স্বামী রফিকুল ইসলামের সাথে সরাসরি কথা বললে জানা যায়, তাদের বিয়ে হয়েছিল ১১ বছর পূর্বে। জীবিকার তাগিদে তিনি প্রবাসে ছিলের দীর্ঘ সময় যাবত। এসময়ে তাদের দম্পতির একটি পুত্র সন্তান ও একটি কন্যা সন্তান হয়। তিনি প্রবাসে থাকলেও বিভিন্ন সময়ান্তর দেশে এসেছেন এবং নিয়মিত ভাবে স্ত্রীর কাছে টাকা প্রেরন করেছেন তাদের ভরণপোষণের জন্য। তিনি আরো জানান, অভিযুক্ত কাউসার দীর্ঘ সময় যাবত তার স্ত্রীকে প্রেম ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আসছে এবং বিভিন্ন ভাবে উত্যক্ত করেছে। এ বিষয়ে দফায় দফায় তারা সামাজিক সালিশির মাধ্যমে মিমাংসাও করেছেন।এরই মধ্যে তার স্ত্রী মার্জিয়া অভিযুক্ত কাউসার ইসলামের সাথে পরকীয়ায় লিপ্ত হয় এবং কয়েক দফায় বাড়ি থেকে চলে যায়। পরবর্তীতে মার্জিয়ার বড় ভাই থাকে ফিরিয়ে নিয়ে আসতো। এভাবেই দীর্ঘদিন চলার পরে রফিকুল ইসলাম গত তিন মাস পূর্বে দেশে ফিরে আসলে প্রত্যক্ষ ভাবে কয়েক দফায় তার স্ত্রীকে পরকীয়া সম্পর্কে হাতেনাতে ধরেন। কিন্তু তার স্ত্রী উক্ত বিষয়ে তাকেই নানা ধরনের হুমকী ধমকী দেয় এবং আত্মহত্যা করার ভয়ভীতি দেখায়। এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার (০৩ মার্চ) সন্ধ্যায় মার্জিয়া আক্তার তার স্বামীর গৃহ থেকে নগদ ১ লক্ষ টাকা এবং প্রায় ২ লক্ষ টাকার অলংকার নিয়ে তার পরকীয়া প্রেমিক কাউসার ইসলামের সাথে পালিয়ে যায়। উক্ত বিষয়ে স্ত্রী মার্জিয়ার পরিবার ও সমাজের গন্যমান্য ব্যক্তিদের পরামর্শে রফিকুল ইসলাম স্থানীয় থানায় অভিযোগ করেন। বিষয়টি বর্তমানে আইন গত প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।